ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ই জুন ২০২৪, ৪ঠা আষাঢ় ১৪৩১


সাগরে গভীর নিম্নচাপ: কোথায় কতক্ষণ বৃষ্টি হবে জানাল আবহাওয়া অধিদপ্তর


প্রকাশিত:
১৬ নভেম্বর ২০২৩ ১৮:৩২

আপডেট:
১৮ জুন ২০২৪ ০৪:২৬

বঙ্গোপসাগরে থাকা নিম্নচাপটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এর প্রভাবে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের আকাশ মেঘলা। কোথাও কোথাও বৃষ্টি হচ্ছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, গভীর নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে কি না, তা এখনো স্পষ্ট নয়। আজ বৃহস্পতিবার সকালে এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের সর্বশেষ বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নিম্নচাপটি পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় আছে। এটি গত মধ্য রাতে চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৫৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৯০৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৩৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক আজ সকালে বলেন, বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এর প্রভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হচ্ছে। আজ এর প্রভাবে রাজধানীর আকাশ সারা দিনই মেঘলা থাকতে পারে। সেই সঙ্গে বৃষ্টিও হতে পারে। বৃষ্টি হতে পারে দেশের বিভিন্ন স্থানে।

গভীর নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে কি না—এ প্রশ্নের জবাবে ওমর ফারুক বলেন, গভীর নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে কি না, তা এখনো নিশ্চিত নয়। এখন পর্যন্ত বলা যায়, সেই সম্ভাবনা কম। হয়তো গভীর নিম্নচাপ হয়েই এটি চলে যেতে পারে।

আবহাওয়া অফিস বলছে, আজ খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের দু–এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

গভীর নিম্নচাপের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা সৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর উত্তাল রয়েছে।

নিম্নচাপের কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top