ঢাকা রবিবার, ১৯শে মে ২০২৪, ৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হচ্ছে মারাত্মক ঘূর্ণিঝড়


প্রকাশিত:
১৯ জুলাই ২০২৩ ২২:০৬

আপডেট:
১৯ মে ২০২৪ ১০:০৭

সংগৃহীত ছবি


উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হচ্ছে মারাত্মক ঘূর্ণিঝড়। এটা বুধবারের মধ্যেই শক্তিশালী হবে। এ কারণে প্রবল ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস দিচ্ছে ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ। এ ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে দেশটির কোনো কোনো রাজ্যে প্রবল বৃষ্টিপাতের শঙ্কা রয়েছে।

এ বিষয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, ‘বঙ্গোপসাগরে একটি ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হচ্ছে। বৃহস্পতিবারের মধ্যে এটা প্রবল নিম্নচাপে পরিণত হবে বলে শঙ্কা আছে।’

এ সাইক্লোনটি বঙ্গীয় উপকূল থেকে অনেক দূরে কলকাতায় উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলতে পারে বলে জানিয়েছেন ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগের একজন কর্মকর্তা।

উত্তর ভারতে তাণ্ডব চালানোর পর এবার প্রবল বর্ষা শুরু হবে মধ্য ও পূর্ব ভারতে। তার আগেই অবশ্য বঙ্গোপসাগরে ঘনাচ্ছে গভীর ঘূর্ণাবর্ত। খুব শীঘ্রই এটা নিম্নচাপে রূপ নেবে। ঘূর্ণিঝড়ের আকার নিয়ে এই নিম্নচাপ তাণ্ডব চালাতে পারে ঝাড়খণ্ড, ওডিশা ও পশ্চিমবঙ্গ অঞ্চলে। ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যার মধ্যেই শক্তিশালী হয়ে উঠবে বঙ্গোপসাগরের এই ঘূর্ণাবর্ত। সন্ধ্যা থেকেই এর দাপট শুরু হবে। প্রবল ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে এই তিন রাজ্যে।

আগামী দুই দিনের মধ্যেই এই ঘূর্ণাবর্ত উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের উপকূলবর্তী এলাকাগুলোকে ভাসাবে। পশ্চিমবঙ্গ ও ওডিশায় সর্বাধিক বৃষ্টিপাত ঘটাতে এই ঘূর্ণাবর্ত। ২১ জুলাই এটা গভীর নিম্নচাপের আকার ধারণ করবে। এরপর ক্রমশই এটা মধ্য ভারতের দিকে এগিয়ে যেতে থাকবে।

এই ঘূর্ণাবর্ত ও বর্ষার কারণে বৃষ্টি হবে ওডিশা, ছত্তিশগড়, তেলঙ্গানা, মধ্য প্রদেশে। মহারাষ্ট্র, কঙ্কন ও গুজরাট উপকূলেরও আগামী তিন দিন বৃষ্টিপাত হবে।

ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ ভুবনেশ্বরের ডিরেক্টর এইচ আর বিশ্বাস বলেন, "বঙ্গোপসাগরে যে ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হয়েছে তা ক্রমশই শক্তি বৃদ্ধি করছে। এ কারণে আগামী ২৪ ঘণ্টা ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে উপকূলবর্তী রাজ্যগুলোতে। বুধবার থেকে তুমুল বৃষ্টি হবে ওডিশা ও পশ্চিমবঙ্গে। বৃষ্টিতে ভাসবে গাঙ্গেয় উপকূলবর্তী এলাকাগুলো।" ২০ থেকে ২২ জুলাইয়ের মধ্যে বঙ্গোপসাগরের এই ঘূর্ণাবর্ত সর্বাধিক প্রভাব ফেলবে।

 

সূত্র : দ্যা টেলিগ্রাফ


বিষয়:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top